বৈদ্যুতিক কুকারে জীবাণু মুক্ত করা যাবে এন৯৫ মাস্ক

এন৯৫ মাস্ক ব্যবহার করে করোনাভাইরাস থেকে সুরক্ষিত থাকা যায়। বাজারের দামি মাস্কের অন্যতম এটি। কিন্তু এই মাস্ক ধোয়া-পরিষ্কার করা বেশ ঝামেলার। তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে খুব সহজেই এই মাস্ক জীবাণু মুক্ত করা সম্ভব।

মাস্ক একবার ব্যবহারের জিনিস। কিন্তু বর্তমানে যা পরিস্থিতি তাতে একবার ব্যবহার সম্ভব নয়। সেক্ষেত্রে একবার ব্যবহারের পর দ্বিতীয়বার ব্যবহারের আগে মাস্ককে জীবাণু মুক্ত করা একান্ত জরুরি।

সম্প্রতি ভারতীয় বংশোদ্ভূত এক গবেষক এর উপায় বের করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, ইলেকট্রিক কুকারে পঞ্চাশ মিনিট শুকনো তাপে এন৯৫ মাস্ক কার্যকরভাবে স্যানিটাইজ করা সম্ভব। ভালভ-রেসপিরেটর থাকলে ভাইরাসের প্রবেশ আটকানো যাবে। কিন্তু শ্বাস ছাড়ার সময় তো জীবাণু ভালভের মাধ্যমে বাইরে বেরিয়ে যাবে। কাজেই যিনি ভালভযুক্ত মাস্ক পরছেন, তিনি নিজেকে নিরাপদ রাখতে পারবেন।

গবেষক বৈদ্যুতিক-কুকারে এই এন৯৫ মাস্ক স্যানিটাইজের ক্ষেত্রে কার্যকর হওয়ার সম্ভাবনা দেখছেন। গবেষকরা অনুমান করেছেন যে শুকনো তাপে, কোনও রাসায়নিক পদার্থ ছাড়াই জীবাণু নির্মূলকরণ, পরিশ্রুতকরণ, পরিস্রাবণ করা যাবে এন৯৫ মাস্ককে। যা সাধারণ মানুষের হাতের নাগালে।

গবেষক প্রায় ৫০ মিনিট ১০০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে বৈদ্যুতিক-কুকারের মধ্যে মাস্কটি রাখেন। এরপর দেখেন করোোভাইরাসসহ চারটি পৃথক শ্রেণির ভাইরাস মুক্ত হয় মাস্কটি।

শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য