ফল খান ভালো করে ধুয়ে

বাজার থেকে কিনে এনে যেকোনো ফল হুট করেই খেতে শুরু করবেন না। ফল বা সবজি খাওয়ার আগে তা ভালো করে ধুয়ে নেওয়া প্রয়োজন। রান্না করার আগেও সবজি ভালোমতো ধুয়ে নিতে হবে। অনেক বাড়িতেই ফল খাওয়ার আগে তা বেশ কিছুক্ষণ পানিতে ভিজিয়ে রাখা হয়। কিন্তু এর কারণ জানেন? বাজার থেকে কেনা ফল কিছুক্ষণ পানিয়ে ভিজিয়ে রেখে তারপর তা খেলে অনেক সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন।

কথায় বলে, প্রতিরোধ নিরাময়ের চেয়ে ভালো। তাই ফল বা সবজি খাওয়ার আগে তা ধুয়ে নেওয়াটা প্রতিরোধের একটি ধাপ। এটি পরিপাকতন্ত্র ও ত্বকের জন্য উপকারী। এ ছাড়া অন্যান্য কারণগুলো জেনে নিন:

কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয়
হঠাৎ কোষ্ঠকাঠিন্য? কোনো ফল ঠিকমতো না ধুয়ে খেলে এ সমস্যা হতে পারে। আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে রয়েছে, সব ধরনের ফল ও সবজিতে কিছু থার্মোজেনিক উপাদান বা তাপজাতীয় বৈশিষ্ট্য থাকে, যা শরীরের কার্যক্রমে প্রভাব ফেলে। পানিতে ফল ভিজিয়ে রাখলে তা ফল ও সবজিতে থাকা ওই তাপ কমাতে সাহায্য করে। এতে কোষ্ঠকাঠিন্য, ত্বকের সমস্যা, মাথাব্যথা বা ডায়রিয়ার মতো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দূর হয়। তাই ফল অবশ্যই ধুয়ে খেতে হবে।

কীটনাশক দূর হয়
ফল ও সবজির পোকামাকড় দূর করতে অনেক সময় কীটনাশক বা রাসায়নিক ব্যবহার করা হয়। অনেক সময় ফল বা সবজির গায়ে কীটনাশক লেগে থাকতে পারে। ফল ধুয়ে না খেলে এসব কীটনাশক সরাসরি শরীরে চলে যায়। বিশেষজ্ঞরা বলেন, সরাসরি কীটনাশকের সংস্পর্শে এলে শ্বাসকষ্ট, ত্বক ও চোখে অ্যালার্জি, মাথা ঝিমঝিম করার মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে। অনেক সময় শুধু ফল ধুয়ে ফেললে এসব কীটনাশক দূর করা যায় না। কিছুক্ষণ পানিতে ভিজিয়ে রেখে তারপর খাওয়া উচিত।

রাসায়নিক দূর হয়
অনেক সময় ফল বিক্রেতারা বেশি দিন ফল টিকিয়ে রাখতে ফরমালিনসহ নানা রকম রাসায়নিক ফলে ব্যবহার করেন। শুধু ধুয়ে ফেললে এ ধরনের রাসায়নিক দূর হয় না। তাই যতটা সম্ভব বেশি সময় পানিতে ভিজিয়ে রাখলে এসব রাসায়নিক দূর হতে পারে। আপেল, মাল্টা, স্ট্রবেরি, টমেটো, পেয়ারা, শসা অবশ্যই বেশি সময় ধরে পানিতে রেখে তারপর খাবেন।

তাপ দূর হয়
নিশ্চয়ই তরমুজ বা ডাব কিনে বালতি ভরা পানিতে অনেকক্ষণ ডুবিয়ে রাখতে দেখেছেন। এতে ও ফল ঠান্ডা হয় এবং খেতেও তৃপ্তিকর হয়। কিছু ফল আছে, যা শরীরে তাপ উৎপন্ন করে। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলেন, আম, তরমুজ কিংবা পেঁপে শরীরে তাপ উৎপন্ন করে। এই অতিরিক্ত তাপ পরিপাকতন্ত্রে প্রভাব ফেলে। ফলে ডায়রিয়া বা ত্বকে সংক্রমণ দেখা যায়। বেশিক্ষণ পানিতে ডুবিয়ে রাখলে প্রাকৃতিক এ তাপ কমে যায় এবং শরীরের জন্য তা নিরাপদ হয়।

শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য