বান্দরবানে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ও ইনকিউবেশন সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

বান্দরবানে শেখ কামাল আইসিটি ইনকেউবেশন সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করছেন পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং।

বান্দরবানে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ও ইনকিউবেশন সেন্টার নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর করা হয়েছে। ৫ মার্চ শনিবার সকালে বান্দরবান সদরের সুয়ালকে এই ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং। এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্মেদ।

এ সময় বান্দরবান বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ. এফ ইমাম আলী, বান্দরবান ৬৯ পদাতিক রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো: জিয়াউল হক, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সত্যহা পানজি ত্রিপুরা, জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি, পুলিশ সুপার জেরিন আখতার, পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ ইসলাম বেবী, বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিকর্ণ কুমার ঘোষসহ জেলার বিশিষ্টজনেরা উপস্থিত ছিলেন।

বান্দরবান সদর উপজেলার সুয়ালক ইউনিয়নের হলুদিয়ায় বান্দরবান বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস এলাকায় ৩ একর জমিতে ৮৪ কোটি টাকা ব্যয়ে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ও ইনকিউবেশন সেন্টার নির্মাণ করা হচ্ছে। বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের তত্ত্বাবধানে ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সার্বিক সহযোগিতায় প্রকল্পটি নির্মাণ করা হবে।

অনুষ্ঠানে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্মেদ পলক বলেন, তরুণদের কর্মসংস্থানের নতুন ঠিকানা হচ্ছে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ও ইনকিউবেশন সেন্টার। দেশের ৬৪টি জেলায় প্রকল্পটির কাজ শেষ হলে প্রতিবছর লক্ষাধিক তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে পারবো। শিক্ষার্থীরা সনদমুখী, বিদেশমুখী এবং ঢাকামুখী হবেনা, জেলায় জেলায় প্রযুক্তি নির্ভর কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে।

এ সময় পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেন, পার্বত্যবাসীর জন্য আজ অত্যন্ত আনন্দের দিন। পাহাড়ের তরুণ-তরুণীদের কর্মসংস্থানের জন্য শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ও ইনকিউবেশন সেন্টার নির্মিত হচ্ছে। প্রতিষ্ঠানটি এই অঞ্চলে একদিন আলো ছড়াবে, হাজার হাজার মানুষের কর্মসংস্থান তৈরি করবে বলে আমরা আশা করছি।

শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য