পৃথিবীর যত রোমাঞ্চকর খেলা

ওয়াটার রাফটিং

মানুষ সবসময়ই রোমাঞ্চপ্রিয়। রোমাঞ্চের জন্য যুগে যুগে মানুষের দু:সাহসিক সব অভিযান কিংবা কর্মকান্ডের উদাহরণ দিয়ে শেষ করা যাবেনা! ছুটি কাটাতে গিয়ে নানারকম ক্রিয়াকলাপ কিংবা খেলাধূলার ক্ষেত্রে মানুষের এ রোমাঞ্চপ্রিয়তা সবসময়ই তুঙ্গে! পৃথিবীব্যাপী ভ্রমনপিপাসুদের মধ্যে কিছু রোমাঞ্চকর খেলা বা ক্রিয়াকলাপ বর্তমানে অনেক জনপ্রিয়, যা জানার পর আপনারও ইচ্ছে হতে পারে ঘর থেকে এক্ষুনি বেড়িয়ে পড়তে! যদিও বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারির প্রকোপ কমে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করাই ভালো।

* ওয়াটার রাফটিং: পন্চাশের দশক থেকে প্রচুর জনপ্রিয়তা পাওয়া এই রোমাঞ্চকর খেলাটি সাহস, ঝুঁকি এবং টিমওয়ার্কের এক অনন্য নিদর্শন। এটি সাধারণত পাথুরে এলাকার সাদা পানিতে খেলা হয়। দশ থেকে চৌদ্দ মিটার লম্বা একেকটি বিশেষ নৌকায় একজন দলনেতার সমন্বয়ে কয়েকজনকে যৌথভাবে এই পাথুরে নদী পার হতে হয়। নদীর কিছু কিছু পয়েন্টে থাকে ভীষণ উত্তেজনা এবং বিপদের আশংকা। এই খেলা খেলতে হলে পাশের দেশ নেপাল, ভারত ছাড়াও ফিলিপাইন, আমেরিকা, ইকুয়েডর, জিম্বাবুয়ে, উগান্ডা, চিলি, জাম্বিয়াতে চলে যেতে পারেন।

বাঞ্জি জাম্পিং

* বান্জি জাম্পিং: কোন উঁচু পাহাড় বা স্থাপনা থেকে ইলাস্টিকের লম্বা দড়ি নিজের শরীরে বেঁধে একেবারে ফ্রি ফল করলে অনুভূতিটা কেমন হতে পারে! ভাবছেন নিচে পড়ে গেলেতো মরেই যাবো! ব্যাপারটা তা নয়। আপনি লাফ দেবার কয়েক সেকেন্ড পরেই পায়ে বাঁধা দড়ির কারণে হঠাৎ ঝুলতে থাকবেন আর উপভোগ করবেন এই মাত্র ঘটে যাওয়া অসম্ভব রোমাঞ্চকর ঘটনাটি এবং একদমই অন্যরকম এক জায়গা থেকে নিচের ও আশপাশটা দেখার সুযোগ! দু:সাহসিক এই খেলার নাম বান্জি জাম্পিং যা সুইজারল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড , অস্ট্রেলিয়া, নেপাল, ভারত, যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপের অনেক দেশসহ পৃথিবীজুড়ে জনপ্রিয়। শুধুমাত্র উঁচু ছাদ, ব্রিজ, বা পাহাড়ই নয়, বান্জি জাম্প হট এয়ার বেলুন বা হেলিকপ্টার থেকেও দেয়া হয়।

স্কাই ডাইভিং

* স্কাইডাইভিং: পাখির মত ওড়ার সাধ মানুষের সবসময়! ভাবুনতো! হাজার মাইল ওপর থেকে একদম ফ্রি ফল করলেন এবং ভাসতে থাকলেন বাতাসে। হঠাৎই মাধ্যাকর্ষণ চাপ অনুভব করলেন আর সাথে সাথে খুলে গেল পিঠে বেঁধে রাখা প্যারাসুট! ব্যাস! ধীরে ধীরে ল্যান্ড করলেন নির্ধারিত স্থানে! প্রচন্ড রোমাঞ্চকর দু:সাহসিক এ খেলাটি খেলতে চাইলে চলে যেতে হবে সুইজারল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড, আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া, সাউথ আফ্রিকা, দুবাই, স্পেন, জাম্বিয়া কিংবা পাশের দেশ নেপালে!

প্যারাগ্লাইডিং

* প্যারাগ্লাইডিং: বর্তমানে বহুল জনপ্রিয় এবং অপেক্ষাকৃত কম ঝুঁকিপূর্ণ এ খেলাটি বিশ্বের বিভিন্ন জায়গায় গেলেই খেলতে পারবেন। পাশের দেশ নেপালে এটি পর্যটকদের জন্য একটি সাধারণ বিনোদনমূলক খেলায় পরিণত হয়েছে। প্যারাগ্লাইডার হচ্ছে হালকা, পা ব্যবহার করে চালু করা একধরনের গ্লাইডার এয়ারক্রাফট৷ যেহেতু গ্লাইডার হচ্ছে ইঞ্জিনবিহীন বিমান, তাই প্যারাগ্লাইডারে কোনো ইঞ্জিন ব্যবহৃত হয়না। এটি গ্রীষ্মকালীন খেলা হিসেবে পন্চাশের দশকে জনপ্রিয়তা পায়।

স্কুবা ডাইভিং

* স্কুবা ডাইভিং: সমুদ্রের তলদেশে বিচিত্র প্রাণী আর উদ্ভিদকুলের এক অনন্য ভুবনের হাতছানিতে সাড়া দিতে চাইলে দিতে হবে স্কুবা ডাইভ। স্কুভাডাইভিং সাধারণত সামুদ্রিক গবেষণা বা সামরিক কাজের জন্য করা হলেও, বিনোদনের জন্যও এটি করা হয়ে থাকে। পানির নিচে নি:শ্বাস নেওয়ার জন্য যে যন্ত্র এবং পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়, যাকে বলা হয় Self-Contained Underwater Breathing Apparatus তার সংক্ষিপ্তরূপেই এর নামকরণ করা হয়েছে স্কুবা(SCUBA)। বিনোদনের জন্য স্কুবা ডাইভিং করতে চাইলেও প্রাথমিক ভাবে কিছু প্রশিক্ষণ নিয়ে সেটা করতে হয়। শখের স্কুবা ডাইভিং সাধারণত দলবদ্ধভাবে দক্ষ প্রশিক্ষকের সাথে করতে দেয়া হয়। ইন্দোনেশিয়া, ইকুয়েডর, নিউজিল্যান্ড, কিরিবাতি, বারমুডা স্কুবা ডাইভারদের জন্য দারুন আকর্ষণীয় স্থান।

সার্ফিং

* সার্ফিং: পানির উপরিভাগের ঢেউয়ের সাথে পাল্লা দিয়ে তীরের বা বালুকাবেলার দিকে নিজেকে নিয়ে যাওয়ার এক দু:সাহসিক খেলা হলো সার্ফিং। একটি বোর্ডের ওপর দাঁড়িয়ে বা শরীরের ভর দিয়ে এই খেলার খোলোয়াড়কে বলা হয় সার্ফার। হাওয়াই, পেরু, পাপুয়ানিউগিনি, পর্তুগাল, ব্রাজিল, সুইডেন, নেদারল্যান্ডস, অস্ট্রেলিয়া ইত্যাদি দেশে এই খেলা বেশ জনপ্রিয়। বাংলাদেশের কক্সবাজারেও কয়েক বছর ধরে অনেকে সার্ফিং করছে এবং জনপ্রিয়তা বাড়ছে।

জিপ লাইনিং

* জিপ লাইনিং: ইকো-ট্যুর এর অংশ হিসেবে এই খেলা বেশ জনপ্রিয়। একটি তারের একপাশ থেকে বিশেষ হ্যান্ডেলের সাহায্যে ঝুলে স্লাইড করে আরেক পাশে যাওয়াটাই জিপ লাইনিং। সাধারণত পাহাড়ী এলাকা বা জলাশয়ের উপর দিয়ে এধরনের জিপ লাইন করা হয়ে থাকে। নেপাল, কোস্টারিকা, নিউজিল্যান্ড, ফ্রান্স, অস্ট্রেলিয়াসহ নানান দেশে এই খেলা বেশ জনপ্রিয়।

কায়াকিং

* ক্যানোয়িং/কায়াকিং: প্যাডেলের সাহায্যে একরকম ডিঙ্গি নৌকার মত নৌকায় চড়ে লেক, নদী কিংবা সাগরে অ্যাডভেঞ্চার করা এখন ভ্রমনপিপাসুদের মধ্যে বেশ জনপ্রিয় খেলা। ক্যানো প্রধানত একধরনের প্রাচীন নৌযান ছিল। ১৯ শতকে এসে এটি খেলা হিসেবে চালু হয়।

হট এয়ার বেলুন রাইড

* হট এয়ার বেলুন রাইডঃ তুলনামূলক নিরাপদ কিন্তু অনেক রোমাঞ্চকর এক বিনোদনমূলক কার্যকলাপ হলো হট এয়ার বেলুন রাইডিং। মানুষ ভর্তি একটি বিশালাকার ঝুড়ির নিচের দিকে প্রপেন জ্বালিয়ে গরম বাতাস সৃষ্টি করে সেই বাতাস ওপরে লাগোয়া বেলুনের ভেতর সরবরাহ করার মাধ্যমে পুরো যানটা উড়তে পারে। তুরস্ক,মায়ানমার, ক্যালিফোর্নিয়া, তানজানিয়া, ফ্রান্সসহ বিভিন্ন দেশে পর্যটকরা এই রাইডের অভিজ্ঞতা নিতে যায়।

শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য