৩০০০ কোটি টাকায় বিক্রি ছবিটি

৫০০ বছরের পুরোনো শিল্পকর্মটি। ধারণা করা হয়, প্রখ্যাত চিত্রশিল্পী লেওনার্দো দা ভিঞ্চি যিশুখ্রিষ্টের এই ছবিটি এঁকেছিলেন। নিউইয়র্কে তা বিক্রি হয়েছে ৪৫ কোটি ডলারে, বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ৩৭৬১ কোটি ৯৮ লাখ টাকা। শিল্পকর্মটি ‘সালভাতো মুন্ডি’ নামে পরিচিত। এর অর্থ ‘বিশ্বের পরিত্রাতা’। যিশুখ্রিষ্টকে বলা হয় পরিত্রাতা।

নিলামে এযাবৎকালের সবচেয়ে বেশি মূল্যে বিক্রি হওয়া শিল্পকর্ম এটি। বিক্রি হওয়ার পর ব্রিটিশ নিলামঘর ক্রিস্টিতে সবাই উল্লসিত হয়ে ওঠে এবং করতালি দেয়।

লেওনার্দো দা ভিঞ্চি ১৫১৯ সালে মারা যান। তাঁর আঁকা ২০টিরও কম শিল্পকর্ম টিকে আছে। এগুলোর একটি সালভাতোর মুন্ডি। ধারণা করা হচ্ছে, এটি কারও ব্যক্তিগত সংগ্রহে ছিল। ১৫০৫ সালের কিছু সময় পরে এটি আঁকা হয়েছিল।

দাম ওঠার পর নিলামঘর ক্রিস্টিতে আনন্দ উল্লাস। ছবি: এএফপি

  1. নিলামে দর-কষাকষির পর শিল্পকর্মটি দাম ওঠে ৪০ কোটি ডলার। বিভিন্ন অর্থ যুক্ত হয়ে তা দাঁড়ায় ৪৫ কোটি ডলারে। যিনি শিল্পকর্মটি কিনেছেন, তাঁর নাম জানা যায়নি। বিবিসি অনলাইনের খবরে জানানো হয়, টেলিফোনের মাধ্যমে তিনি নিলামে অংশ নিয়েছিলেন। মাত্র ২০ মিনিটেই দাম ঠিক হয় শিল্পকর্মটির।

শিল্পকর্মে দেখা যায়, যিশুখ্রিষ্ট এক হাত তুলে রয়েছেন। অন্য হাতে তিনি গোলাকার কাচের জিনিস ধরে আছেন।

১৯৫৮ সালে লন্ডনে এই শিল্পকর্মটি ৬০ ডলারে বিক্রি হয়েছিল। ওই সময় ধারণা করা হয়েছিল শিল্পকর্মটি লেওনার্দো নিজে আঁকেননি। এটি তাঁর কোনো অনুসারীর আঁকা। এখন পর্যন্ত শিল্পকর্মটি যে লিওনার্দোরই আঁকা, তা স্বীকৃত হয়নি।

একজন সমালোচকের মতে, শিল্পকর্মটি বার্নিশ ও ঘষামাজা করা হয়েছে। বহুবার এটি রং করা হয়েছে। এ কারণে এটি একই সঙ্গে নতুন ও পুরোনো মনে হয়।

তবে নিলামঘর ক্রিস্টি জোর দিয়ে বলেছে, শিল্পকর্মটি অকৃত্রিম। বিংশ শতাব্দীতে এই শিল্পকর্ম উদ্ধার করাকে বড় ঘটনা হিসেবে অভিহিত করেছে ক্রিস্টি।

শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য