বান্দরবানে করোনা মোকাবেলায় বেসরকারি তহবিল: প্রথম দিনেই আশ্বাস ১২ লাখ টাকার

কোভিড-১৯ মোকাবেলায় বান্দরবানের জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে মতবিনিময় সভায় উপস্থিত কর্মকর্তাবৃন্দ।

বান্দরবানে করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় বেসরকারি অনুদানে জরুরি তহবিল গঠন করা হয়েছে। ২৮ জুলাই সকালে জেলা কোভিড কমিটির সভায় এ তহবিল গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি জানান, ‘জেলা সদর হাসপাতালে স্থাপিত আইসোলেশন সেন্টারে অস্থায়ী কর্মচারি নিয়োগ, পরিচ্ছন্নতা, রক্ষণাবেক্ষণসহ বিভিন্ন খাতে এই অর্থ ব্যয় করা হবে। এছাড়া উপজেলাগুলোতেও করোনা রোগীদের চিকিৎসা ও সংশ্লিষ্ট খাতে এই তহবিল থেকে বরাদ্দ দেওয়া হবে। জেলা কোভিড কমিটির সভায় এ বিষয়ক একটি প্রস্তাব উত্থাপিত হলে সর্বসম্মতিক্রমে তহবিলটি গঠন করা হয়’।

বান্দরবান সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান একেএম জাহাঙ্গীর জানান, ‘সভায় জরুরি তহবিল গঠন করার সিদ্ধান্ত হবার পর বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংগঠনের পক্ষ থেকে অনুদানের ঘোষণা আসে।

এর মধ্যে পার্বত্য মন্ত্রীর পক্ষ থেকে ১ লাখ ২০ হাজার টাকা, জেলা প্রশাসক ১ লাখ টাকা, পুলিশ সুপার ৫০ হাজার টাকা, জেলার শীর্ষস্থানীয় কয়েকজন ঠিকাদারের ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ৫০ হাজার করে, উপজেলা চেয়ারম্যানের ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ২০ হাজার, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল কুদ্দুছ এর ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ১০ হাজার, মাল্টিমিডিয়া নিউজ পোর্টাল খোলা চোখ-এর প্রতিনিধি মিঠুন দাশ-এর ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ৫ হাজার টাকাসহ মোট প্রায় ১২ লাখ টাকার ঘোষণা আসে’।

জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজির সভাপতিত্বে এ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং। সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন সিভিল সার্জন ডা. অংসুই প্রু, পুলিশ সুপার জেরিন আখতার, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম জাহাঙ্গীর, পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ ইসলাম বেবী, জেলা পরিষদের সদস্য মোজাম্মেল হক বাহাদুর, লক্ষীপদ দাস, পৌরসভার কাউন্সিলর সৌরভ দাশ শেখর, ব্যবসায়ী মোহাম্মদ ইসলাম কোম্পানীসহ জেলার বিভিন্ন স্তরের ব্যবসায়ী ও নেতৃবৃন্দ।

শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য