কোন দেশের পাসপোর্ট কতটা শক্তিশালী?

বিশ্বের কোন দেশের পাসপোর্ট কতটা শক্তিশালী তা নিয়ে প্রতি বছর র‍্যাংকিং প্রকাশ করে যুক্তরাজ্য ভিত্তিক পরামর্শক প্রতিষ্ঠান হ্যানলি অ্যান্ড পার্টনার্স৷ ২০২১ সালের সূচকে বাংলাদেশের তিন ধাপ অবনমন হয়েছে৷

কোন দেশের পাসপোর্ট দিয়ে কতটি দেশে ভিসামুক্ত ও অন অ্যারাইভাল ভিসায় প্রবেশ করা যায়, ইন্টারন্যাশনাল এয়ার ট্রান্সপোর্ট অথরিটির(আইএটিএ) এই তথ্যের ভিত্তিতে সূচকটি তৈরি করে হ্যানলি অ্যান্ড পার্টনার্স। ৫ই জানুয়ারি ২০২১ এর তথ্য নিয়ে তারা নতুন এ র‍্যাংকিং প্রকাশ করেছে। তবে করোনার কারণে বিভিন্ন দেশের নাগরিকদের ভ্রমণে সাময়িক যেসব নিষেধাজ্ঞা রয়েছে সেগুলোকে এখানে বিবেচনায় নেয়া হয়নি।

১.সবচেয়ে শক্তিশালী জাপান: টানা চতুর্থবারের মতো এই সূচকে সবচেয়ে শক্তিশালী পাসপোর্টের স্বীকৃতি পেয়েছে জাপান৷ দেশটির পাসপোর্ট বহনকারীরা ১৯১টি দেশেই ভিসামুক্ত বা অন অ্যারাইভাল ভিসার প্রবেশাধিকার পান৷

২.শীর্ষ তিনে এশিয়া: দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে সিঙ্গাপুর৷ দেশটির পাসপোর্টে ভিসামুক্ত ও অন অ্যারাইভাল সুবিধা দেয় ১৯০টি দেশ৷ আর তৃতীয় অবস্থানে থাকা দক্ষিণ কোরিয়ার পাসপোর্টে এমন সুবিধা রয়েছে ১৮৯টি দেশে৷

৩.ইউরোপে শীর্ষ জার্মানি: ১৮৯টি দেশে ভিসামুক্ত ও অন অ্যারাইভাল সুবিধা পেয়ে জার্মানির পাসপোর্ট দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে যৌথভাবে রয়েছে তৃতীয় অবস্থানে৷ চতুর্থ অবস্থানে আছে ইটালি, ফিনল্যান্ড, স্পেন ও লুক্সেমবুর্গ৷ দেশগুলোর পাসপোর্টধারীরা ১৮৮টি দেশে এমন সুবিধা পেয়ে থাকেন৷ তালিকায় সপ্তম অবস্থান পর্যন্ত ধারাবাহিকভাবে রয়েছে ডেনমার্ক, অস্ট্রিয়া, সুইডেন, ফ্রান্স, পর্তুগাল, নেদারল্যান্ডস, আয়ারল্যান্ড ও সুইজারল্যান্ড৷

৪. যুক্তরাষ্ট্র ১৮৫টি দেশে: সাত বছর আগে এই তালিকায় যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান ছিল শীর্ষে৷ ক্রমান্বয়ে তা সপ্তম অবস্থানে নেমে এসেছে৷ দেশটির পাসপোর্ট ব্যবহার করে ১৮৫টি দেশে ভিসামুক্ত বা অন অ্যারাইভাল ভিসায় ভ্রমণ করতে পারেন নাগরিকরা৷ একই সংখ্যার কারণে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে যৌথভাবে জায়গা করে নিয়েছে যুক্তরাজ্য, নরওয়ে, বেলজিয়াম ও নিউজিল্যান্ড৷

৫. সার্কে শক্তিশালী মালদ্বীপ: সার্কভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে শক্তিশালী পাসপোর্ট মালদ্বীপের৷ তাদেরকে ভিসামুক্ত ও অন অ্যারাইভাল সুবিধা দেয় ৮৫টি দেশ৷ র‍্যাংকিং-এ দেশটির অবস্থান ৬২৷ দক্ষিণ এশিয়ায় তাদের পরে রয়েছে ভারত৷ ৫৮ টি দেশে ভিসামুক্ত ও অন অ্যারাইভাল ভ্রমণের অনুমতি থাকায় তাদের অবস্থান ৮৫৷ ভূটান ৯০তম, শ্রীলঙ্কা ১০০ তম, বাংলাদেশ ১০১ তম, নেপাল ১০৪তম, পাকিস্তান ১০৭তম আর আফগানিস্তান রয়েছে বিশ্বে সবার নীচে ১১০তম অবস্থানে৷

৬.বাংলাদেশের অবনমন: এই তালিকায় বাংলাদেশ ইরানের সঙ্গে যৌথভাবে ১০১ তম অবস্থানে রয়েছে, যা ২০০৬ সাল থেকে শুরু করে এই র‍্যাংকিং এ এখন পর্যন্ত সর্বনিম্ন৷ বাংলাদেশ ২০২০ সালে ৯৮তম, ২০১৯ সালে ৯৯তম আর ২০১৮ সালে ছিল ১০০তম অবস্থানে৷ গত বছরের তুলনায় এই বছর বাংলাদেশকে ভিসামুক্ত সুবিধা দেয়া দেশের সংখ্যায় অবশ্য কোন পরিবর্তন আসেনি৷ বাংলাদেশি পাসপোর্টে ৪১টি দেশে ভিসামুক্ত ও অন অ্যারাইভাল সুবিধা পাওয়া যায়৷ হেনলির তথ্য অনুযায়ী ভুটান, ইন্দোনেশিয়া, গাম্বিয়া, লেসোথো, কুক আইল্যান্ডস, ফিজি, ভানুয়াতু ও ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জের বিভিন্ন দেশে ভিসামুক্ত প্রবেশাধিকার রয়েছে বাংলাদেশিদের৷ শ্রীলঙ্কায় যাওয়া যাবে ইলেকট্রনিক ট্রাভেল অথরাইজেশন ভিসার মাধ্যমে৷

এশিয়ার দেশেগুলোর মধ্যে মালদ্বীপ, নেপাল, তিমুর লেস্টেতে বাংলাদেশি পাসপোর্টে অন অ্যারাইভাল ভিসায় ভ্রমণ করা যায়৷ এছাড়া আফ্রিকার কেইপ ভার্দ, কমোর্স দ্বীপপুঞ্জ, গিনিয়া-বিসাউ, কেনিয়া, মাদাগাস্কার, মৌরিতানিয়া, মোজাম্বিক, রুয়ান্ডা, সেনেগাল, সিচেলেস, সিয়েরা লিয়ন, সোমালিয়া, টোগো, উগান্ডায় রয়েছে এমন সুবিধা৷ ওসেনিয়া অঞ্চলের সামোয়া, টুভালু আর দক্ষিণ অ্যামেরিকার বলিভিয়াতেও যাওয়া যাবে অন অ্যারাইভাল ভিসাতে৷

শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য