করোনা মোকাবেলায় সামাজিক অন্তর্ভূক্তি বৃদ্ধিতে বান্দরবানে তহজিংডং-এর কর্মশালা অনুষ্ঠিত

কর্মশালায় বক্তব্য রাখছেন তহজিংডং এর নির্বাহী পরিচালক চিং সিং প্রু।

কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে সম্প্রীতি রক্ষা ও সামাজিক অন্তর্ভূক্তি সৃষ্টিতে স্বেচ্ছাসেবামূলক কর্মকান্ড বৃদ্ধির লক্ষ্যে বান্দরবানে কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২৫ ও ২৬ আগষ্ট দুই দিনব্যাপী এ কর্মশালার আয়োজন করে উন্নয়ন সংস্থা তহজিংডং। জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচি- ইউএনডিপি’র সহায়তায় এই কর্মশালাটিতে বান্দরবানের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উচ্চ মাধ্যমিক ও স্নাতক পর্যায়ের ৮০ জন শিক্ষার্থী অংশ নেন।

২৫ আগষ্ট বান্দরবান সরকারি কলেজের একটি শ্রেণীকক্ষে এবং ২৬ আগষ্ট জেলা সদরের একটি হোটেলের অডিটোরিয়ামে কর্মশালাটি অনুষ্ঠিত হয়।

কর্মশালার বিভিন্ন পর্বে শিক্ষার্থীদের সাথে আলোচনায় অংশ নেন ইউএনডিপি’র প্রকল্প ব্যবস্থাপক রবার্ট স্টোলম্যান, যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বিজ্ঞানী ড. মং সা নু মারমা, বান্দরবান সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডা. ক্য থোয়াই প্রু প্রিন্স, মাল্টিমিডিয়া নিউজ পোর্টাল খোলা চোখ-এর সম্পাদক ফরিদুল আলম সুমন, প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মিনারুল হক, বান্দরবান রেডক্রিসেন্ট ইউনিটের ইয়ুথ চীফ মনিরুল ইসলাম, সিমাভি প্রকল্পের কর্মসূচি ব্যবস্থাপক মাহবুবা কুমকুম, বান্দরবান সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মিল্টন মুহুরী, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর সহকারি পরিচালক কামাল উদ্দিন ভুঁইয়া এবং তহজিংডং এর নির্বাহী পরিচালক চিং সিং প্রু।

আলোচকরা কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে সৃষ্টি হওয়া নতুন নতুন সংকট উত্তরণে যুব সমাজের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার আহবান জানান। মহামারী মোকাবেলায় সমাজের সর্বস্তরের মানুষের সহযোগিতা ও সম্প্রীতির গুরুত্ব তুলে ধরেন এবং সমাজের সব শ্রেণীপেশার মানুষের সুচিকিৎসা এবং সুরক্ষা পাবার অধিকারের ওপর আলোকপাত করেন।

কর্মশালায় মহামারীর সময়ে সামাজিক শান্তি রক্ষায় যুব সমাজের ভূমিকা সম্পর্কে নিজ নিজ মতামত তুলে ধরেন উপস্থিত শিক্ষার্থীরা।

শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য