একটি সমৃদ্ধশালী জাতি গঠনে ক্রীড়ার ভূমিকা অনন্যঃ ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো.জিয়াউল হক

‘একটি সমৃদ্ধশালী জাতি গঠনে ক্রীড়ার ভূমিকা অনন্য। যে জাতি যত বেশি ক্রীড়াপ্রেমী হয় সেই জাতি তত বেশি শিক্ষিত এবং তত বেশি উন্নত হয়। উন্নত বিশ্বের বিভিন্ন দেশগুলোর দিকে তাকালে দেখা যায়, যে দেশগুলো যত বেশি উন্নত তাদের খেলাধুলার মানটাও তত বেশি উন্নত হয়। খেলাধুলার সাথে সংশ্লিষ্টরা মানসিকভাবে দৃঢ় শক্তির হয় এবং তাদের আচার ব্যবহারও মার্জিত হয়।’

৩১ মার্চ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বান্দরবান রাজার মাঠে অনুষ্ঠিত বান্দরবান বক্সিং ক্লাব আয়োজিত ‘ইন্ডিপেন্ডেন্স ডে বক্সিং চ্যাম্পিয়নশীপ-২০২২’ এর সমাপনী এবং পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন বান্দরবান ৬৯ পদাতিক ব্রিগেডের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জিয়াউল হক।  

বান্দরবান বক্সিং ক্লাবের এই আয়োজনকে স্বাগত জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘সেনাবাহিনীর প্রশিক্ষণ জীবনের প্রথম ইভেন্ট বক্সিং। বক্সিং কতটা কঠিন এবং কঠোর একটি খেলা আমরা তা উপলব্ধি করি। আমরা জানি এই খেলায় কি পরিমাণ রক্ত ঝরে। বক্সিং এমন একটি খেলা যেখানে কেউ কাউকে ছাড় দেয় না। এই খেলায় জয় পেতে সবাই দৃঢ় মানসিক শক্তি নিয়ে অংশগ্রহণ করে। ভবিষ্যতে বান্দরবানে যাতে আরও বড় পরিসরে এই ধরনের বক্সিং প্রতিযোগিতার আয়োজন করা যায় এবং বান্দরবানের বক্সিংকে এগিয়ে নেয়ার লক্ষ্য নিয়ে আমি জোন কমান্ডারকে দিকনির্দেশনা দিয়েছি।

এ সময় তিনি রিজিয়ন এবং জোনের সাথে সার্বক্ষণিকভাবে যোগাযোগ রাখতে বান্দরবানে বক্সিং সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহবানও জানান। বান্দরবানের বক্সিংকে এগিয়ে নিতে সর্বোচ্চ সহযোগিতা প্রদানে রিজিয়ন সর্বদা প্রস্তুত বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বান্দরবান বক্সিং ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মাহফুজুর রশীদ বাচ্চু। বান্দরবান বক্সিং ক্লাবের ম্যানেজমেন্ট এন্ড কমিউনিকেশন ডিরেক্টর লুৎফুর রহমান (উজ্জ্বল) এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে আয়োজিত পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ৫ইবি বান্দরবান জোন কমান্ডার লেঃ কর্ণেল মাহমুদুল হাসান, বান্দরবানের পৌর মেয়র মো. ইসলাম বেবী, জিএসও-(ইন্টঃ) ক্যাপ্টেন নাঈম পারভেজ, ক্যাপ্টেন ফুয়াদ (৫ ইবি), ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো.ওমর ফারুক প্রমুখ।

খেলায় সর্বমোট ৯টি বাউটে (প্রতিটি বাউটে ১২ মিনিট) ১৮ জন বক্সার অংশগ্রহণ করেন। বান্দরবান বক্সিং ক্লাবের আমন্ত্রণে এই খেলায় রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি এবং চট্টগ্রাম থেকে ১২ জন বক্সার অংশগ্রহণ করেন। এর আগে একইদিন বিকেল ৫টায় বান্দরবানের পুলিশ সুপার জেরিন আখতার-এর পক্ষে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. নাজিম উদ্দিন উদ্বোধনী বাউটে উপস্থিত ছিলেন। তিং তিং মে (ওমেন-৬৬ কেজি) এবং লুবায়েত লুবু (মেন-৩২ কেজি) কে টুর্নামেন্টের শাইনিং বক্সার হিসেবে নির্বাচিত করেন চট্টগ্রাম থেকে আগত সিনিয়র বক্সার ও এই টুর্নামেন্টের প্রধান নির্বাচক মো. ফরহাদ হোসেন এর নেতৃত্বাধীন ৩ সদস্যের বিচারক প্যানেল। রিং রেফারি হিসেবে খেলায় দায়িত্ব পালন করেন মো.ইলিয়াস।

খেলায় অংশগ্রহণকারী সব খেলোয়াড়কে প্রশংসাপত্র এবং ৯ বিজয়ীকে রংধনু মেডেল তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো.জিয়াউল হক।

শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য