চিম্বুক পাহাড়ে হোটেল নির্মাণে সেনাবাহিনীর সাথে জেলা পরিষদের কী চুক্তি হয়েছিলো?

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্য শৈ হ্লা।

বান্দরবানের চিম্বুক এলাকায় ফাইভ স্টার হোটেল নির্মাণের বিষয়ে নিজেদের অবস্থান ব্যাখ্যা করেছে বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ। ২২ নভেম্বর রবিবার সকালে জেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্য শৈ হ্লা।

ভিডিও সংবাদটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

প্রসঙ্গত, সেনাবাহিনী ও সিকদার গ্রুপের যৌথ উদ্যোগে চিম্বুক এলাকার নাইতং পাহাড়ে ম্যারিয়ট হোটেল নামের এই ফাইভ স্টার হোটেল নির্মিত হলে সেখানকার পরিবেশ ও জনজীবন হুমকির মুখে পড়বে বলে আশঙ্কা করছেন স্থানীয় ম্রো জনগোষ্ঠীর মানুষ। প্রায় ৭০ থেকে ১১৬টি পাড়ার বাসিন্দারা পর্যায়ক্রমে ওই এলাকা থেকে উচ্ছেদের হুমকিতে পড়বেন বলেও মনে করেন তারা। তাই হোটেল নির্মাণ বন্ধের দাবিতে সংশ্লিষ্ট এলাকায় ৮ নভেম্বর ‘কালচারাল শো-ডাউন’ করেন স্থানীয়রা।
সংবাদটি পড়তে ক্লিক করুন বান্দরবানের নীলগিরি এলাকায় হোটেল নির্মাণের প্রতিবাদে স্থানীয়দের কালচারাল শো-ডাউন

এছাড়া বান্দরবান জেলা শহরসহ রাজধানী ঢাকা এবং অন্যান্য জেলায়ও নানা শ্রেণী-পেশার মানুষ এই হোটেল নির্মাণের প্রতিবাদে নানা কর্মসূচি পালন করে আসছেন।

অন্যদিকে এ ঘটনায় সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে এমন দাবিতে মানববন্ধন করেন স্থানীয় আরো কিছু বাসিন্দা। ভিডিও সংবাদটি দেখতে ক্লিক করুন এখানে

জেলা পরিষদের বন্দোবস্তি আবেদনকৃত এবং দখলে থাকা ২০ একর জমির ওপর হোটেল নির্মাণের বিষয়ে ২০১৫ সালের ২৭ ডিসেম্বর জেলা পরিষদ এবং বান্দরবান ৬৯ পদাতিক ব্রিগেডের মধ্যে সম্পাদিত চুক্তিটি এ রকম:

শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য